Press Release 11-03-2018

 

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন 

জনসংযোগ শাখা 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

চট্টগ্রাম-১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি. 

৪১নং ওয়ার্ডে সুধি সমাবেশে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন

পারিবারিক ও সামাজিক নিরাপত্তার স্বার্থে পাড়ায় মহল্লায় মাদক,

সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, পারিবারিক ও সামাজিক নিরাপত্তার স্বার্থে পাড়ায় মহল্লায় মাদক,সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।এ লক্ষে রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও পেশাজীবি সকলের সমš^য়ে মাদক,সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে সকলকে অবদান রাখতে হবে। মেয়র বলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নাগরিকদের নিরাপত্তার স্বার্থে এবং পারিবারিক শান্তি ও স্বস্থি ফিরিয়ে আনতে মাদকসেবিদের নিরাময়ে সহায়তা দেবে। কারণ মাদকসেবিদের দ্বারা পরিবার,সমাজ ও দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও মাদক শান্তি ও নিরাপত্তার পথে সামাজিক হুমকি। এ থেকে যুবকদের রক্ষার জন্য পরিবারের পিতা-মাতাকে সন্তানের প্রতি সুদৃষ্টি দিতে হবে। তাদের গতিবিধি ও আচার-আচরণ সার্বক্ষণিক নজরে রাখতে হবে।  তাহলেই নতুন প্রজন্মের কিশোর-যুবকেরা অপরাধে জড়াবার সুযোগ পাবে না। মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন চট্টগ্রামকে অপরাধমুক্ত নগরী হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয়ে তার সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদ ও মাদক বিরোধী কার্যক্রমের সাথে সর্বস্তরের জনগণের সহযোগিতা কামনা করেন।  ১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি. রবিবার, বিকেলে নগরীর ৪১ নং দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়াডের্র নিজাম মার্কেটস্থ নুরুল আলম টেন্ডলের বাড়ী প্রাঙ্গনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও মাদক বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষনে মেয়র এসব কথা বলেন। স্থানীয় কাউন্সিলর আলহাজ্ব ছালেহ আহম্মদ চৌধুরী এর সভাপতিত্বে এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও আইন শৃংখলা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি এইচ এম সোহেল, ৪০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী জয়নাল আবদীন, ৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন,স্পেশাল ম্যাজিষ্ট্রেট  (যুগ্ম জেলা জজ) মিসেস জাহানারা ফেরদৌস, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট আফিয়া আখতার, ৪১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি নুরুল আলম টেন্ডল, বর্তমান সাধারন সম্পাদক নুরুল আলম সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও নানা শ্রেনী পেশার প্রতিনিধিরা তাদের মতামত উপস্থাপন করেন।

 

চট্টগ্রাম- ১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি.

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত মোবাইল কোর্ট অভিযান

 

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে স্পেশাল ম্যাজিষ্ট্রেট (যুগ্ম জেলা জজ) জাহানারা ফেরদৌস ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আফিয়া আখতার এর নেতৃত্বে ১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি. রবিবার, সকালে চট্টগ্রাম মহানগর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়। অভিযানকালে কোতোয়ালী থানাধীন মোমিন রোডের চেরাগী পাহাড় এলাকায় দোকানের অংশ বর্ধিত করে অবৈধভাবে ফুটপাত দখল করা ও রাস্তার উপর ফুলের দোকানের মালামাল স্তুপ করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টির দায়ে চেরাগী হোটেলকে ৫ হাজার টাকা, নিউ স্টার ফুলের দোকানকে ২ হাজার টাকা, অপরাজিতা ফুলের দোকানকে ২ হাজার টাকা, হেভেন ফ্লাওয়ারকে ২ হাজার টাকা, স্টার পুষ্পাকে ২ হাজার টাকা, রেশমা পুষ্প বিতানকে ২ হাজার টাকা, ফ্লাওয়ার গার্ডেনকে ২ হাজার টাকা, রীমা ফুলের দোকানকে ২ হাজার টাকা, অতিথি ফ্লাওয়ারকে ২ হাজার টাকা, সমিষ্ঠা ফ্লাওয়ারকে ১ হাজার টাকা, শাহ মজিদিয়া পুষ্প কেন্ডকে ২ হাজার টাকা, সানফ্লাওয়ারকে ৫ হাজার টাকা, রোজ সাজ পুষ্প বিতানকে ২ হাজার টাকা, শাহ জালাল পুষ্পকে ২ হাজার টাকা, সিলসিলা পুষ্প বিতানকে ২ হাজার টাকা, খাজা পুষ্প বিতানকে ২ হাজার টাকা, এন বি পুষ্প বিতানকে ২ হাজার টাকা, কৃষ্ণচুড়া পুষ্প বিতানকে ২ হাজার টাকা, চেরাগী ডিপার্টমেন্ট ষ্টোরকে ৩ হাজার টাকা ও আজাদ ডিজিটাল কেয়ার সেলুনকে ২ হাজার টাকাসহ সর্বমোট ৪৬ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

অভিযানকালে সিটি কর্পোরেশনের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ ম্যাজিষ্ট্রেটদ্বয়কে সহায়তা করেন।

 

চট্টগ্রাম-১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি. 

১৯নং ওয়ার্ডে রাস্তা নির্মাণের জন্য ২ গন্ডা ১ কড়া জায়গা

সিটি কর্পোরেশনের নিকট হস্তান্তর

১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি. দুপুরে মেয়র দপ্তরে  চট্টগ্রাম নগরীর ১৯নং দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ডের অছি মিয়া রোডের বাসিন্দা এবং আদর্শ সমাজকল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো. আক্তার হোসেন ১৯নং এবং ১১নং ওয়ার্ড সংযোগ সড়ক জাকির হোসেন সড়কে সর্বসাধারণের চলাচলে সুবিধার্থে তার নিজস্ব জায়গায় ২ গন্ডা ১ কড়া চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নিকট দলিল মূলে হস্তান্তর করেন। মো. আক্তার হোসেন স্থানীয় কাউন্সিলর আলহাজ্ব ইয়াছিন চৌধুরী আশু, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফারজানা পারভীন, স্থানীয় সমাজসেবক মোহাম্মদ শফি, মো. সেলিমউল হক, মো. সোহেল, জাহাঙ্গীর আলমকে সাথে নিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের নিকট জায়গার দলিল হস্তান্তর করেন।

 

চট্টগ্রাম-১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি.

সিটি মেয়রের সাথে নগরীর ১১টি ওয়ার্ডে উন্নয়ন কাজের বিষয়ে

কাউন্সিলর, ঠিকাদার ও প্রকৌশলীদের মতবিনিময়

আসন্ন বর্ষা মৌসুমের পূর্বে ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরের উন্নয়ন কার্যক্রম সমাপ্ত করার লক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন ১১ মার্চ ২০১৮ খ্রি. রবিবার, সকালে নগরভবনে কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে চট্টগ্রাম নগরীর ১৬,১৭,১৮,১৯,২৯,৩০,৩১,৩২,৩৩,৩৪ ও ৩৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, প্রকৌশলী এবং সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড ঠিকাদারদের সাথেএলাকার এডিপি ও রাজস্ব উন্নয়ন কাজের বিষয়ে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময়ে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন কাজের গুনগত মান ঠিক রেখে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করার নির্দেশনা দেন। তিনি বলেন, নাগরিক ভোগান্তির জন্য যদি কেউ কাজ বিলম্ব করার চেষ্টা করেন তাহলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। মতবিনিময় সভায় কাউন্সিলর সাইয়েদ গোলাম হায়দার মিন্টু, এ কে এম জাফরুল ইসলাম, হাজী মো. হারুন উর রশিদ, মো. ইয়াছিন চৌধুরী আশু, গোলাম মো. জুবায়ের, মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী, তারেক সোলায়মান সেলিম, জহর লাল হাজারী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, মো. ইসমাইল, হাজী নুরুল হক, মিসেস আঞ্জুমান আরা বেগম, মিসেস ফারজানা পারভীন, ফেরদৌসী আকবর, নিলু নাগ, লুৎফুর নেছা দোভাষ বেবী, চসিক সচিব মো. আবুল হোসেন, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আনোয়ার হোছাইন, নির্বাহী প্রকৌশলী ফরহাদুল আলমসহ সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

সংবাদদাতা

মো. আবদুর রহিম

জনসংযোগ কর্মকর্তা

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন